সিলেটMonday , 26 September 2022
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি
সবখবর

সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচন থেকে ‘সরে দাঁড়ালেন’ যারা

Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার:
অনুষ্ঠিতব্য সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন ৭ সাধারণ সদস্য প্রার্থী। ফলে এ পদে লড়াই করবেন ৪৭ প্রার্থী। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে তারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নির্বাচনের সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সিলেট জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শুকুর মাহমুদ মিঞা।

তিনি জানান- ‘জেলা পরিষদের সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়ন দাখিলকারী ৭ প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে এ পদে ৪৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারকারীরা হলেন- ২নং সাধারণ ওয়ার্ড (সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২৮, ২৯, ৩০, ৪০, ৪১, ৪২, সংরক্ষিত ১০ ও ১৪ এবং দক্ষিণ সুরমা উপজেলা)-এর জাকিরুল ইসলাম লায়েক, ৭নং সাধারণ ওয়ার্ড (গোলাপগঞ্জ)-এর উআবু সুফিয়ান, ৯নং সাধারণ ওয়ার্ড (জৈন্তাপুর)-এর মো. আব্দুর রশিদ, ১০নং সাধারণ ওয়ার্ড (গোয়াইনঘাট)-এর সুভাষ চন্দ্র পাল, ১২নং সাধারণ ওয়ার্ড (কানাইঘাট)-এর শাহীন আহমদ ও ১৩নং সাধারণ ওয়ার্ড (জকিগঞ্জ)-এর মো. তাজ উদ্দিন।

সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়- অনুষ্ঠিতব্য এ জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ পদে ৯০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র ক্রয় করলেও ৭২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। চেয়ারম্যান পদে ২ জন মনোনয়নপত্র ক্রয় করলেও ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান ছাড়া অপরজন মনোনয়নপত্র জমা দেয়নি। ফলে নাসির উদ্দিন খান বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হচ্ছেন। আর সাধারণ সদস্য পদে ১৩ ওয়ার্ডে ৬৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন কিনলেও জমা দিয়েছেন ৫৫ জন। তাদের মধ্যে মনোনয়ন যাচাই-বাচাইকালে ৩ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হলেও আপিলে ২ জন মনোনয়নপত্র ফিরে পান। আর রোববার সাধারণ সদস্য পদে ৭ প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। ফলে ১৩ ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে ৮৭ জন প্রার্থী ভোটের লড়াইয়ে আছেন। আর সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৯ প্রার্থী মনোনয়নপত্র ক্রয় করলেও জমা দিয়েছেন ১৭ জন। এ পদে কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করায় ভোটের লড়াইয়ে রয়েছেন ওই ১৭ নারী নেত্রী।

আগামী ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে : 990 বার