সিলেটWednesday , 14 December 2022
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি
সবখবর

মাঠে নেমেই দুই বিশ্বরেকর্ড মেসির

Link Copied!

স্পোর্টস ডেস্ক:
বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে আজ লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা মুখোমুখি ক্রোয়েশিয়ার। এই সেমিফাইনালে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক ভেঙে দিয়েছেন দুই বিশ্বরেকর্ড। এখানেই শেষ নয়, মেসির সামনে আছে একগাদা নতুন রেকর্ডও।

পুরো ক্যারিয়ারেই অসংখ্য রেকর্ড ভেঙেছেন-গড়েছেন লিওনেল মেসি। আজ সেমিফাইনালে মাঠে নেমে তিনি ভেঙে দিয়েছেন জার্মানির বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক লোথার ম্যাথাউসের রেকর্ড।

মেসি কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত ফুটবলের সর্বোচ্চ এই আসরে মোট ২৪টি ম্যাচে মাঠে নেমেছেন। সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছেন তিনি। বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় তিনি যখন মাঠে নামলেন, তখনই তিনি বিশ্বকাপে লোথার ম্যাথাউজের সর্বকালীন সর্বাধিক ম্যাচ খেলার রেকর্ডে ভাগ বসিয়ে ফেলেছেন।

এখানেই শেষ নয়। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে চলে আসায় আরও একটা ম্যাচ খেলার নিশ্চয়তা আর্জেন্টিনা পেয়েই গেছে। জিতলে তো কথাই নেই, হারলেও মেসিরা খেলবেন তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে। কোনো দৈব দুর্বিপাক না ঘটলে সেই ম্যাচে মাঠে নামবেন মেসি। ফলে রেকর্ডটা এককভাবে নিজের করে নেওয়ার সুযোগও থাকছে তার সামনে।

মাঠে নেমে মেসি আরও একটা রেকর্ড ভেঙে ফেলেছেন। অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে খেলার রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন তিনি। অধিনায়ক হিসেবে ১৮ ম্যাচ খেলে মেসি ভাগ বসিয়েছিলেন মেক্সিকান রাফা মার্কেজের রেকর্ডে। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলতে নেমে সেই রেকর্ডটা ভেঙে দিয়েছেন মেসি।

মেসির সামনে আরও রেকর্ড আছে। পাওলো মালদিনি বিশ্বকাপে সর্বাধিক ২২১৭ মিনিট খেলেছেন। মেসি আপাতত বিশ্বকাপে মোট ২০১৪ মিনিট ফুটবল খেলেছেন। সেমিফাইনাল যদি অতিরিক্ত সময়ে গড়ায় আর মেসি খেলেন শেষ পর্যন্ত, তাহলে তিনি মালদিনির এই রেকর্ডও ভেঙে দেবেন।

বিশ্বকাপের নকআউটে মেসি সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ৫টি গোল। ২০১০ বিশ্বকাপে শুরু, সেবার দ্বিতীয় রাউন্ডে মেক্সিকোর বিপক্ষে কার্লোস তেভেজকে দিয়ে করিয়েছিলেন গোল। চার বছর পর ব্রাজিলেও দ্বিতীয় রাউন্ডে জয়সূচক গোলটা এসেছিল তার যোগান থেকে, গোলটা করেছিলেন আনহেল ডি মারিয়া। ২০১৮ বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ডে হেরে বিদায় নিলেও মেসি গোল করিয়েছেন গ্যাব্রিয়েল মের্কাদো আর সার্জিও আগুয়েরোকে দিয়ে। চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের সবশেষ ম্যাচে তিনি গোল করিয়েছেন নাহুয়েল মলিনাকে দিয়ে।

আজও যদি কাউকে দিয়ে মেসি গোল করাতে পারেন, তাহলে পেলের সর্বাধিক নকআউট অ্যাসিস্টে ভাগ বসাবেন তিনি। আর যদি একাধিক অ্যাসিস্ট করে বসেন, তাহলে এককভাবে রেকর্ডটা হয়ে যাবে তার।

বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার হয়ে মেসি ও গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা, উভয়েই ১০টি করে গোল করেছেন। আজ গোল করলেই তিনিই বিশ্বকাপের মঞ্চে আর্জেন্টিনার হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে যাবেন।

শুরুর তিন রেকর্ড নয়, মেসির চোখে যে থাকবে শেষ দুটোই, তা বলাই বাহুল্য। তাহলে যে আর্জেন্টিনার ফাইনালের রাস্তাটাও পরিষ্কার হয়ে যায়!

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে : 986 বার