সিলেটMonday , 23 January 2023
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি
সবখবর

৯ বছর বয়সে মিমের শিকার সেই কিশোরের মুখে এখন হাসি, কেন জানেন?

Link Copied!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ছবি দিয়ে মিম তৈরি করা হয়। এরমধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একটি ছবি হলো— এক কিশোর আড় চোখে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে আছে। এ দিয়ে ইন্টারনেটে তৈরি করা হয়েছে হাজার হাজার মিম। এখন কেমন আছে এ ছবির কিশোর?

তুমুল জনপ্রিয় ছবিটি তোলা হয় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে ফাস্টফুড চেইন শপ পাপাইসের একটি দোকানে। এটি আসলে একটি ভিডিও থেকে নেওয়া। ছেলেটির নাম ডাইআনার্স্ট কলিন। প্রায় এক দশক আগে যখন ডাইআনার্স্টের বয়স ৯ বছর ছিল তখন পরিবারের সঙ্গে পাপাইসের দোকানে যায় সে। সেখানে খাবার নিতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে লাইনে দাঁড়ায়। ওই সময় অপরিচিত এক ব্যক্তি তার ভিডিও করা শুরু করেন। কারণ তার মনে হয়েছিল ছেলেটি দেখতে লিল তারিওর মতো। ওই সময় লিল তারিও তার নাচের অঙ্গভঙ্গির কারণে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন।

যখন ওই অজ্ঞাত ব্যক্তি ভিডিও করা শুরু করেন তখন চিন্তায় পড়ে যায় ডাইআনার্স্ট । সে আড় চোখে ওই ব্যক্তির দিকে তাকিয়ে ভাবতে থাকে কেন তার ভিডিও করা হচ্ছে?

এরপর ওই ব্যক্তি ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ ভাইনে ডাইআনার্স্টের ভিডিওটি প্রকাশ করেন। সেখান থেকেই এটি ভাইরাল হয়।

বর্তমানে ডাইআনার্স্ট কলিনের বয়স ১৮। সে পেইনভেলির লেক এরিক কলেজের হয়ে আমেরিকান ফুটবল খেলে। আর যেই পাপাইসের দোকানে ডাইআনার্স্ট ভাইরাল হয়েছিল সেই পাপাইস তার সঙ্গে সম্প্রতি একটি চুক্তি করেছে। চুক্তি অনুযায়ী, কোম্পানিটি নিজেদের বিজ্ঞাপনে ডাইআনার্স্টের ছবি, ভিডিও ব্যবহার করবে। এর বদলে ডাইআনার্স্ট পাবে অর্থ।

তবে ডাইআনার্স্ট যখন ভাইরাল হয় তখন তার জন্য বিষয়টি বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে এ কিশোর বলেছেন, ‘যখন আমার ভিডিও ভাইরাল হয়, তখন অনেকে আমার বাবার কাছে আসতেন এবং বলতেন, আপনার ছেলেকে ইন্টারনেটে দেখেছি। তারা এ নিয়ে মজা করত। কিন্তু ছেলেকে নিয়ে মানুষ মজা করছে এটি আমার বাবা পছন্দ করতেন না। কিন্তু এখন ওই বিষয়টি আমি আশীর্বাদে পরিবর্তন করেছি।’

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে : 987 বার