সিলেটSaturday , 28 January 2023
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি
সবখবর

হাজারো শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে সিলেটে গণিত উৎসবের উদ্বোধন

Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার:
খুদে গণিতবিদদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে সিলেট নগরের শাহি ঈদগাহ এলাকার স্কলার্সহোম ক্যাম্পাস। ডাচ্-বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবে অংশ নিতেই তাদের এ সমাগম। হাজারো শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকের অংশগ্রহণে আজ শনিবার সকাল নয়টায় গণিত উৎসবের সিলেট আঞ্চলিক পর্বের উদ্বোধন করা হয়েছে।

সিলেট পর্বের উদ্বোধন ঘোষণা করেন স্কলার্সহোম শাহি ঈদগাহ ক্যাম্পাসের অধ্যক্ষ লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) মুনীর আহমেদ কাদেরী।

এ সময় সেখানে নর্থইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের উপাচার্য ইলিয়াস উদ্দীন বিশ্বাস, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক সিলেট শাখার ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ নজমুল হক, স্কলার্সহোম সিলেটের জ্যেষ্ঠ প্রভাষক নাসের আহমেদ নোমান, প্রথম আলো সিলেটের নিজস্ব প্রতিবেদক সুমনকুমার দাশ, প্রথম আলো বন্ধুসভা সিলেটের সভাপতি অন্তর শ্যাম, সাধারণ সম্পাদক ইয়াহিয়া হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী পর্বে স্কলার্সহোম শাহি ঈদগাহ ক্যাম্পাসের অধ্যক্ষ মুনীর আহমেদ বলেন, ‘বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের গাণিতিক মেধার উৎকর্ষ বৃদ্ধি এবং আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের জন্য বাংলাদেশ দল নির্বাচনের লক্ষ্যে দেশব্যাপী এ উৎসব আয়োজিত হচ্ছে। এ উৎসব শিক্ষার্থীদের মধ্যে যে প্রাণচাঞ্চল্য জাগিয়ে তুলেছে, তা দেখে আমরা অভিভূত। শিক্ষার্থীরা বেশি বেশি গণিত অনুশীলনের মাধ্যমে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে গণিতে দক্ষতার পরিচয় দেবে—এ আশাবাদ আছে।’

নর্থইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের উপাচার্য ইলিয়াস উদ্দীন বিশ্বাস বলেন, শিক্ষার্থীরা গণিত উৎসবের প্রাণ। এ উৎসবে সফল হতে না পারলেও হতাশ হওয়ার কিছু নেই। কারণ, এ উৎসব থেকে সবাই কিছু না কিছু শিখবে।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক সিলেট শাখার ব্যবস্থাপক মো. নজমুল হক বলেন, গণিতের প্রতি আগ্রহ জন্মাচ্ছে এ উৎসব। এটা এখন প্রাণের উৎসবে পরিণত হয়েছে। ডাচ্-বাংলা ব্যাংক সব সময়ই শিক্ষার্থীদের পাশে আছে। দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিচ্ছে।

উদ্বোধনী পর্বের শুরুতে জাতীয় পতাকা, বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড পতাকা ও আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড পতাকা উত্তোলন করা হয়। আমন্ত্রিত অতিথিদের বক্তৃতার আগে বন্ধুসভার সদস্যরা জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন। উদ্বোধনী পর্ব সঞ্চালনা করেন সিলেট বন্ধুসভার সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফারহানা হক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর শিক্ষার্থীরা প্রাথমিক, নিম্নমাধ্যমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক—এ চার ক্যাটাগরিতে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অংশ নেয়। তবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরুর অনেক আগেই সিলেট বিভাগের চার জেলা থেকে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা স্কলার্সহোম শাহি ঈদগাহ ক্যাম্পাসে জড়ো হন। দেশে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় দীর্ঘ বিরতির পর সশরীর গণিত উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ জন্য উৎসবে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাড়তি উচ্ছ্বাস দেখা গেছে।

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে : 988 বার