সিলেটTuesday , 21 February 2023
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি

পুষ্পমাল্য অর্পণ নিয়ে মহিলা আ.লীগ নেত্রীর নাক ফাটিয়ে দিলেন আরেক নেত্রী

Link Copied!

বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়ার ধুনটে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শহীদ মিনারে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে মহিলা আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের দুই নেত্রীর মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। আজ মঙ্গলবার বেলা দুইটার দিকে উপজেলা পরিষদ সড়কে একটি খাবারের হোটেলে এ ঘটনা ঘটে। হাতাহাতিতে একজনের নাক ফেটে গেছে। অন্যজন সামান্য আঘাত পেয়েছেন।

আহত ব্যক্তিরা হলেন উপজেলার চৌকিবাড়ি ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক লিপি আকতার (৩৮) ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের কর্মী কাউসার জাহান ওরফে কেয়া (৩০)। তাঁদের মধ্যে লিপিকে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও কাউসার জাহানকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ধুনট উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পপি রানী পোদ্দার ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা জাহানের মধ্যে দলীয় কর্মকাণ্ড নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। ওই বিরোধের জেরে দুই নেত্রীর পক্ষের নেতা-কর্মীরা পাল্টাপাল্টি বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছিলেন। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে মুজিব চত্বর এলাকায় শহীদবেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের দুই পক্ষ পৃথকভাবে শহীদ মিনারে আসে। তখন আগে ও পরে ফুল দেওয়া নিয়ে দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে।

মহিলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা জানান, ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ সকাল থেকে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। এ অবস্থায় বেলা দুইটার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বরের একটি খাবারের হোটেলে খেতে যান মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পক্ষের নেত্রী লিপি আকতার। এ সময় সাধারণ সম্পাদকের পক্ষের কর্মী কাউসার জাহান তাঁর সহযোগীদের নিয়ে ওই হোটেলে ঢুকলে তাঁদের মধ্যে কথা–কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে লিপি ও কাউসার জাহানের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে লিপি আক্তারের নাক ফেটে যায়। আর কাউসার জাহান সামান্য আহত হন।

উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পপি রানী পোদ্দার বলেন, শহীদ মিনারে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের সঙ্গে কথা–কাটাকাটি হয়। এরই জেরে লিপি খাতুনকে হোটেলের ভেতর মারধর করেছেন কাউসার জাহান ও তাঁর সহযোগীরা।

তবে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা জাহান বলেন, শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণকালে লিপি আকতার তাঁদের ফুলের মালা ছিঁড়ে দেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্রে কথা–কাটাকাটি হলে কাউসার জাহানকে মারধর করেন লিপি।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম বলেন, মহিলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে মারধরে দুজন আহত হওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।