সিলেটSaturday , 2 December 2023
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে এক ব্যতিক্রম স্মৃতিচারণা

admin
December 2, 2023 2:32 pm
Link Copied!

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে এক ব্যতিক্রম স্মৃতিচারণা
মহসীন হাবিব:
বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে অনেক গ্রন্থ রচিত হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, দলিল, স্মৃতিচারণ, গল্প, কবিতা সবই আছে। সংখ্যায় অনেক। কিন্তু বলতে দ্বিধা নেই, অনেক মূল্যবান সংযোজন থাকলেও মুক্তিযুদ্ধ এবং তত্কালীন রাজনৈতিক পরিবেশ-পরিস্থিতি নিয়ে বেশকিছু আছে অতিরঞ্জন, অতিকথন, পক্ষপাতদুষ্ট রচনাও। মুক্তিযুদ্ধের বিশাল ক্যানভাসে আছে নানা রং-বর্ণ। কিন্তু অধিকাংশ ইতিহাস রচনায়, স্মৃতিচারণে, উপন্যাসে দেখা গেছে হয় সাদা অথবা কালো রংই অঙ্কিত হয়েছে। বাদ পড়েছে নানা ছোটখাটো রঙের আঁচড়। যে কারণে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গ্রন্থের পাঠকপ্রিয়তা আশানুরূপ হয়ে ওঠেনি। তবে নিশ্চয়ই মূল্যবান গ্রন্থগুলো মানুষের কাছে সমাদৃত হয়েছে। আর এই তালিকায় সম্প্রতি, অর্থাত্ ২০২৩ সালের জুলাই মাসে যোগ হয়েছে একটি অসাধারণ স্মৃতিচারণ ইংরেজি ভাষায়, ‘দি মেকিং অব বাংলাদেশ: অ্যাজ আই স’ ইট’। লিখেছেন মুহাম্মদ ইদ্রিস।

এ-ধরনের স্মৃতিচারণ পড়তে হলে লেখক সম্পর্কে জানাটা খুবই জরুরি। মুহাম্মদ ইদ্রিস জন্মগ্রহণ করেছেন ফরিদপুর শহরের কমলাপুরে ১৯৫০ সালে। ১৯৭১ সালে ছিলেন ২১ বছর বয়সের তরতাজা যুবক। এককথায় পণ্ডিত মুহাম্মদ ইদ্রিস শিক্ষাজীবনে ছিলেন ফিজিক্সের ব্যতিক্রম মেধাবী ছাত্র। ১৯৭১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। ১৯৭৪ সালে তিনি লন্ডন চলে যান এবং তখন থেকেই লন্ডনে স্থায়ী হয়েছেন। বারবার মাটির টানে ফিরে আসেন বাংলাদেশে। অতি সাধারণ বেশে অসাধারণ মানুষটি তাঁর দেশে এসে মিশে যান মাটি ও মানুষের সঙ্গে। তার চেয়েও বড় কথা, সত্য ও সঠিক পথ নির্ধারণের এক সহজাত শক্তি নিয়ে জন্মেছেন তিনি।

ব্যক্তিগতভাবে না চিনেও যে কোনো পাঠক তাঁর লিখিত বইটি পড়লেই অনুধাবন করতে পারবেন সে-কথা। মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততা, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি তিনি ভুলতে পারেননি। সম্ভবত সেই তাড়না থেকেই তিনি গ্রন্থটি লিখে ফেলেছেন। আমাদেরও সৌভাগ্য যে এমন সুলিখিত একটি গ্রন্থের মধ্য দিয়ে আমরা অনেক অজানা বিষয় জানতে পেরেছি। কিছু দালিলিক ঘটনা ছাড়া মুহাম্মদ ইদ্রিস কোনো ধারণা, অনুমানভিত্তিক বক্তব্য দেননি। তিনি সচক্ষে যা দেখেছেন, যেসব ঘটনার সঙ্গে নিজেও সম্পৃক্ত ছিলেন, তাই সাবলীল ইংরেজিতে বর্ণনা করেছেন। তাঁর দেখা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ফরিদপুরে তাঁর নিজ জেলার ঘটনাবলি ব্যক্ত করেছেন। ছোট ছোট ঘটনার মধ্যে যে একটি সমাজের চিত্র অঙ্কিত থাকে তা লেখকের সরল বর্ণনার মধ্য দিয়ে দারুণভাবে ফুটে উঠেছে। তত্কালীন সমাজে একজন সাধারণ দিনমজুরের চিন্তা, একজন ছাত্র বা একজন রাজনীতিবিদের চিন্তা কী রকম ছিল তা জানার জন্য মুহাম্মদ ইদ্রিসের বইটি পড়া জরুরি।

তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের সেন্টিমেন্ট প্রত্যক্ষ করেছেন, বিহারি জনগোষ্ঠীর ভূমিকা দেখেছেন, দেখেছেন চোখের সামনে মৃত্যু। তবে গ্রন্থটিতে তিনি অনেক ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে অনেক চরিত্রের নামোল্লেখ করেননি স্বাভাবিক কারণে। বিগত ৫২ বছরে বাংলাদেশের সমাজ-রাজনীতিতে এসেছে অনেক পরিবর্তন। এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে যে সব নামোল্লেখ প্রাসঙ্গিক মনে হয়নি তা তিনি এড়িয়ে গেছেন।

দি মেকিং অফ বাংলাদেশ:
অ্যাজ আই স’ ইট
মুহাম্মদ ইদ্রিস
প্রকাশক: স্বপ্ন ’৭১
প্রচ্ছদ: নিয়াজ চৌধুরী তুলি
মূল্য: ৫০০ টাকা