সিলেটMonday , 8 July 2024
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি
সবখবর

সিলেটে রথমেলা থেকে প্রথম দিনে ২৪টি পাখি জব্দ

admin
July 8, 2024 2:33 pm
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার:
সিলেট নগরীতে রথমেলা শুরু হয়েছে। রবিবার (৭ জুলাই) রথের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হলেও রথমেলা বসেছে শনিবার থেকেই। এই মেলা প্রাঙ্গণে বিভিন্ন পণ্যের পাশাপাশি দেশীয় পাখি বিক্রি শুরু করেন কিছু বিক্রেতা।

এই খবর পেয়ে সিলেট বন বিভাগের লোকজন ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করে ২৪টি দেশীয় পাখি জব্দ করেন। রবিবার (৭ জুলাই) দুপুরে এই অভিযান পরিচালনা করে বন বিভাগ।সিলেট বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বন বিভাগের সিলেট রেঞ্জের দায়িত্বরতরা এই ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় ২৪টি দেশীয় পাখি জব্দ করা হয়। এর মধ্যে ১৪টি ঘুঘু পাখি, ৯টি শালিক পাখি ও একটি টিয়া পাখি ছিল।

সিলেটে প্রতিবছরই রথযাত্রা উৎসবকে কেন্দ্র করে নগরীর রিকাবীবাজারে গড়ে উঠে মেলা। সেই মেলায় অবাধে বিক্রি হয় দেশীয় পাখিসহ নানা প্রজাতির বিদেশী পাখি। আইন অনুযায়ী দেশী বিদেশী সব ধরনের পাখি বিক্রি নিষিদ্ধ হলেও এই রথমেলাকে কেন্দ্র করে প্রতি বছরই দেশী বিদেশী পাখি বিক্রির জমজমাট আসর বসে।
বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন ২০১২ অনুযায়ী সকল প্রকার দেশীয় পাখি ক্রয়-বিক্রয়, লালন-পালন আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

আইনে বলা হয় ‘কোন ব্যক্তি তফসিল ১ ও ২ এ উল্লিখিত কোন পাখি বা পরিযায়ী পাখির ট্রফি বা অসম্পূর্ণ ট্রফি, মাংস দেহের অংশ সংগ্রহ করিলে, দখলে রাখিলে বা ক্রয় বা বিক্রয় করিলে বা পরিবহন করিলে তিনি অপরাধ করিয়াছেন বলিয়া গণ্য হইবেন এবং উক্তরূপ অপরাধের জন্য তিনি সর্বোচ্চ ৬ (ছয়) মাস পর্যন্ত কারাদন্ড অথবা সর্বোচ্চ ৩০ (ত্রিশ) হাজার টাকা পর্যন্ত অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত হইবেন এবং একই অপরাধের পুনরাবৃত্তি ঘটাইলে সর্বোচ্চ ১ (এক) বৎসর পর্যন্ত কারাদন্ড অথবা সর্বোচ্চ ৫০ (পঞ্চাশ) হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হইবেন।’

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম বলেন, প্রতিবছরই রথমেলায় দেশীয় ও পরিযায়ী পাখি বিক্রির চেষ্টা করে থাকে একটি চক্র । এবার মেলার প্রথমদিনই বন বিভাগ এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়াতে তাদের কৃতজ্ঞতা জানাই। পাশাপাশি বন বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ থাকবে বন্যপ্রাণী ও পাখি বিক্রিরোধে মেলার যেন সার্বক্ষনিক নজরদারি রাখা হয়। পরিবেশবাদীদের পক্ষ থেকেও নিয়মিত নজরদারী রাখা হবে মেলায়।

এ ব্যাপারে সিলেট বন বিভাগের সিলেট রেঞ্জ কর্মকর্তা ( টাউন রেঞ্জ) শহিদুল্লাহ বলেন, রথমেলাকে কেন্দ্র করে পাখি বিক্রি সম্পর্কে আমরা অবগত আছি। তাই মেলা প্রথম দিনই আমরা ঝটিকা অভিযান করে ২৪টি দেশীয় পাখি জব্দ করেছি। এই পাখিগুলো শেখঘাট এলাকায় সুরমা নদীর পাড়ে অবমুক্ত করা হবে বিকালে। প্রতিদিনই মেলায় আমাদের টহল অব্যাহত থাকবে। ঝটিকা অভিযানও চলবে। তবে সুধী সমাজের বাসিন্দারা যদি পাখি বিক্রি হচ্ছে এ ধরনের তথ্য দিয়ে বন বিভাগকে সাহায্য করেন তাহলে আমাদের কাজ করতে সুবিধা হয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে : 997 বার