সিলেটTuesday , 1 November 2022
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ সম্পাদকীয়
  4. খেলা
  5. ছবি কথা বলে
  6. জাতীয়
  7. ধর্ম
  8. প্রবাস
  9. বিচিত্র সংবাদ
  10. বিনোদন
  11. বিয়ানী বাজার সংবাদ
  12. ব্রেকিং নিউজ
  13. মতামত
  14. মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু
  15. রাজনীতি

রাত পোহালেই ওসমানীনগরে ভোট উৎসব

Link Copied!

ওসমনীনগর প্রতিনিধি:
বুধবার সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে ভোটগ্রহণের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সারঞ্জাম প্রেরণ করা হয়েছে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো (ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মিশিন) ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট গ্রহন হবে। ২য় বারের মতো উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থী ও ভোটারদের মধ্যে ভিন্নরকম আমেজ বিরাজ করছে। দিন ব্যাপি গণসমাবেশ, নির্বাচনী অচরণবিধি লঙ্গন ও মোটরসাইকেল মিছিল এবং আওয়ামীলীগের দুই পক্ষে হাতাহাতির মধ্যে দিয়ে রবিবার মধ্যরাতে শেষ হয়েছে সব ধরণের সভা-সমাবেশ ও নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা।

এদিকে, নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায় এড়িয়ে সুষ্ঠ ও উৎসব মুখর পরিবেশে উপজেলা নির্বাচন উপহার দেয়ার কথা জানিয়েছে নির্বাচন অফিস।

অন্যদিকে, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ইভিএম (ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মিশিন) এর মাধ্যমে ভোট গ্রহন হলে কয়েকটি কেন্দ্রে ইভিএম ত্রুটি থাকায় ভোট গ্রহনে বিলম্ব হয় বলে অভিযোগ উঠে। এবছর ইভিএম যাতে ঠিক মতো কাজ করে সেই বিষয়টি নজরে রাখতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনুরোধ জানান প্রার্থী ভোটাররা।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২য় বারের মত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনী সারঞ্জন প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার সকাল ৮টা থেকে উপজেলার ৫৪ টি ভোটকেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহন শুরু হবে। উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ৫৪টি ভোট কেন্দ্রে ৪৩৩টি ভোট কক্ষে মোট ১লক্ষ ৪৭ হাজার ৯শ ৭১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ৭৫ হাজার ৫৭৫জন ও মহিলা ভোটার ৭২ হাজার ৩৯৬ জন।

৫৪ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৪৬টি ভোট কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছে থানা প্রশাসন। তবে সব কেন্দ্রই প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওসমানীনগর থানার ওসি।

এদিকে, ঝুঁকিপূর্ন কয়েকেটি কেন্দ্রে নিজেদের এজেন্ট না দেয়ার কথা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী। ৩টি ইউনিয়নের ৭টি কেন্দ্র তিনি এজেন্ট নিয়োগ সমাস্যা হয়েছে বলে জানান তিনি। এই কেন্দ্রগুলো অধিক ঝুঁকিপূর্ন বলে দাবি তার। তবে, সকল কেন্দ্রেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে বলে ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্য এস এম মাইন উদ্দিন বলেন, ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে ৫৪টি ভোট কেন্দ্রেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাচনে সহকারী রিটানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবু লায়েশ দুলাল বলেন, আচরণবিধির বিষয়ে ম্যাজিস্ট্রেট ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা। অবাদ, সুষ্ঠ ভাবে ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপহার দিতে নির্বাচন অফিস থেকে সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সারঞ্জাম নিয়ে গেছেন প্রিজাইডিং অফিসাররা। ভোট গ্রহনের জন্য নির্বাচন অফিসের পক্ষ থেকে সব ধরণের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। সকল কেন্দ্রের ইভিএম মেশিন চেক করা হয়েছে। আশা করছি কেন্দ্রে ইভিএম সমস্যা করবে না।

জানা গেছে, ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বচনে চেয়ারম্যান পদে ৩জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী সিলেট জেলা যুবলীগের সভাপতি শামিম আহমদ ভিপি (নৌকা)। খেলাফত মজলিসের জেলা কমিটির অর্থ সম্পাদক ছইদুর রহমান চৌধুরী (দেয়াল ঘড়ি) এবং স্বতন্ত্রের মোড়কে উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম (ঘোড়া)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনা মিয়া (টিয়া পাখি), উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিলদার আলী (তালা), বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান গয়াছ মিয়া (চশমা), জুয়েল মিয়া (টিউবওয়েল),আখতার আহমদ (বই), মৌলানা আব্দুল বাছিত (মাইক), আলী হোসেন রানা (উড়োজাহাজ), খন্দকার মাসুম আহমদ পেয়েছেন (বৈদ্যুতিক পাখা)।

এছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুছলিমা আক্তার চৌধুরী (সেলাই মেশিন), জানাহার বেগম (কলস) ও ছানারা বেগম (ফুটবল) প্রতীক নিয়ে প্রতিদন্ধীতা করছেন।

উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল ইসলাম বলেন, সাদিপুর, পশ্চিম পৈলনপুর ও বুরুঙ্গা ইউনিনের কয়েকেটি ভোট কেন্দ্রে অধিক ঝুঁকিপূর্ন বলে মনে করছি। প্রশাসনকে এই বিষয়ে অবহিত করেছি। তারা ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানিয়েছেন। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দেখেছি একাধিক কেন্দ্র ইভিএম ঠিক মতো কাজ করেনি। অনেক ভোটার ভোট না দিয়ে চলে গেছেন। তাই উপজেলা নির্বাচনে ইভিএম এর বিষয়েও ব্যবস্থা গ্রহন করলে ভোটাররাও ভোট দিতে আসবেন।

আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী জেলা যুবলীগের সভাপতি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ভিপি শামীম আহমদ বলেন, আমরা আশা করছি সুষ্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর আমি বিজয়ের ব্যাপারেও আশাবদি।